টলিউড

নিখিল-নুসরত ‘সহবাস’ কেচ্ছার মধ্যেই সোশ্যাল মাধ্যমে বিশেষ বার্তা যশের! 

কিছুদিন ধরেই বাংলার মিডিয়ায় তোলপাড় নুসরত জাহানের খবরে। অভিনেত্রী সাংসদ নাকি মা হতে চলেছেন। কিন্তু নুসরতের অনাগত সন্তানের বাবা কে? এই নিয়ে শুরু হৈচৈ। অভিনেতা যশ দাশগুপ্তর সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা এখন টলিউডের ওপেন সিক্রেট! তাহলে এই সন্তানের বাবা কি তিনিই? কারণ ইতিমধ্যেই নিখিল জানিয়ে দিয়েছিলেন এই সন্তানের বাবা তিনি নন।

এরইমধ্যে দীর্ঘ নীরবতা ভেঙে গতকাল বাক্য বিস্ফোরণ ঘটান সাংসদ অভিনেত্রী নুসরত জাহান। দীর্ঘ সমালোচনা শেষে মুখ খুললেন অভিনেত্রী সংসদ নুসরত জাহান রুহি।নিজের বিবাহিত সম্পর্ককে কার্যত অস্বীকার করে নুসরত বলেন “তুরস্কে বিয়ে হয়েছিল তাঁদের। তুরস্কের বিবাহ আইন অনুযায়ী এই বিয়ে অবৈধ। হিন্দু-মুসলিম বিবাহের ক্ষেত্রে বিশেষ বিবাহ আইন অনুসারে বিয়ে রেজিস্ট্রেশনও হয়নি। ফলে এই বিয়ের আইনত মান্যতা নেই। বিবৃতিতে নুসরত লেখেন, নিখিলের সঙ্গে আমি লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলাম। এটা বিয়েই নয়। সুতরাং বিচ্ছেদের প্রশ্নই ওঠে না।”

এছাড়াও নিখিলের ওপর বিভিন্ন রকমের অভিযোগ এনে পুলিশের দ্বারস্থ হওয়ার হুঁশিয়ারি‌ও দিয়েছেন নুসরত। কিন্তু দূর থেকে এসব দিব্যি উপভোগ করছেন অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। যাঁকে নিয়ে বেঁধেছে নিখিল-নুসরতের দাম্পত্য কলহ।‌ রীতিমতো মুখে কুলুপ এঁটেছেন এই অভিনেতা। গতকাল যখন সর্বসমক্ষে বিবাহিত স্বামী নিখিলকে শুধুমাত্র সহবাস সঙ্গী বলে দাবি করতেে ব্যস্ত ছিলেন নুসরত তখন সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশেষ বার্তা দিলেন যশ। কী বার্তা দিয়েছেন তিনি? ইনস্টাগ্রামে নিজের একটি ছবি শেয়ার করে ক্যাপশনে যশ লিখেছেন, ‘একজন চালাক মানুষ সমস্যার সমাধান করেন। আর একজন জ্ঞানী মানুষ সমস্যা এড়িয়ে যান।’

এই বার্তাটির মধ্য দিয়ে তিনি কীসের ইঙ্গিত দিলেন সেটাই এখন খুঁজতে ব্যস্ত নেট পাড়া! নুসরতের সঙ্গে কোন‌ও সম্পর্ককেই এখন‌ও পর্যন্ত স্বীকার করে নেননি যশ। তাহলে কি এই ব্যাপক সম্পর্কের কেচ্ছায় যেভাবে তিনি গা বাঁচিয়ে চলে যাচ্ছেন তাতে নিজেকেই জ্ঞানী বলে প্রতিপন্ন করছেন তিনি!  তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে এই ছবিতে মন্তব্য করেছেন ‘বিশেষ’ বান্ধবী নুসরত জাহান রুহি। তিনি লিখেছেন, ‘তোমার গাছগুলো সুন্দর লাগছে। সঙ্গে লভ ইমোজি দেন নায়িকা।’ বান্ধবীর মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে মন্তব্য করেছেন বিশেষ বন্ধু যশ’ও







Back to top button