বিনোদন

আট বার ডেকেও কাজের সুযোগ দেননি প্রযোজক! জীবনের কঠিন সময় নিয়ে কী বললেন বিশ্বনাথ বসু?

বাংলা ছোট পর্দা হোক বা বড় পর্দা সমান তালে নিজের অভিনয় দক্ষতা দিয়ে দর্শকদের একটানা মন জয় করে যাচ্ছেন অভিনেতা বিশ্বনাথ বসু। আজকে নিজের অধ্যাবসায় ও জেদের জোরে এই জায়গায় এসে পৌঁছেছেন তিনি। তবে শুরুতে পথটা কিন্তু মসৃণ ছিল না। অনেকটা চড়াই-উৎরাই পেরিয়েই আজকে তিনি এই জায়গায় এসে পৌঁছেছেন।

এক সাক্ষাৎকারে সম্প্রতি বিশ্বনাথ বসু জানিয়েছেন নিজের পূর্ব জীবনের কষ্টের কথা। বসিরহাটে জন্মগ্রহণ করেছিলেন বিশ্বনাথ। পরিবারের কিছু সদস্যদের আর্থিক অবস্থা সচ্ছল থাকায় তারা কলকাতায় এসে থাকতেন। কিন্তু বিশ্বনাথের পরিবারের আর্থিক অবস্থা ততটা ভালো না থাকায় তারা বসিরহাটের বাড়িতেই থাকতেন। কিন্তু সেই থেকে তার মনে জেত ছিল কলকাতায় এসে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করবেন তিনি।

নিজের জেদ কে প্রাধান্য দিতে এবং নিজের অদম্য ইচ্ছে শক্তির জোরে শুরু হয় কঠিন লড়াই। রোজ চলতো স্টুডিও পাড়ায় আনাগোনা। প্রত্যেকদিনই জবাবদিহি করতে হতো কেন তিনি স্টুডিওতে এসেছেন। একইসঙ্গে পরিচালকদের ঘরে ঢোকার জন্য হাজার একটা প্রশ্নের পাহাড় পার করতে হতো তাকে।

একবার এক প্রযোজক তাঁকে আটবার আসতে বলেছিলেন। প্রত্যেকবারই তিনি গিয়েছিলেন। তাঁকে বসতেও বলা হয়নি। কাজের সুযোগও দেওয়া হয়নি। তিনি বলেছিলেন, একবার এক পরিচালক তাঁকে সরস্বতী পূজার সকালে ৭টায় ডেকেছিলেন। ভোর ৫টায় কোন বাড়িতে সরস্বতী পুজো হয় খুঁজে বের করে সেখানে অঞ্জলি দিয়ে অভিনয়ের সুযোগ পাওয়ার জন্য পরিচালকের বাড়িতে হাজির হয়েছিলেন সকাল ৭টাতেই।

নিজের কঠোর পরিশ্রম এবং অভিনয় দক্ষতার জেরেই আজ টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের জায়গা তৈরি করে নিয়েছেন বিশ্বনাথ বসু। এখনো পর্যন্ত তিনি১০০টিরও বেশি সিরিয়াল এবং ১৫০টি ছবিতে কাজ করেছেন।

Back to top button