সিনেমা

ইচ্ছে পূরণে ছুটে গিয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চনের কাছেও! তাও অধরা থেকে গেল চিরঞ্জিতের এই স্বপ্ন

বাংলা চলচ্চিত্র জগতের উজ্জ্বলতম নক্ষত্র চিরঞ্জিত চক্রবর্তী। এক নামে থাকে সকলে চেনেন। কিন্তু এই জনপ্রিয় অভিনেতাই চেয়েছিলেন পরিচালক হতে। তার স্বপ্ন ছিল বোম্বেতে গিয়ে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার। কিন্তু অধরা থেকে গিয়েছে সেই স্বপ্ন।

   

জানা যায় সত্যজিৎ রায় কে দেখে কাজ শিখেছিলেন তিনি। চেয়েছিলেন মুম্বাইতে গিয়ে প্রতিষ্ঠিত হতে এমনকি অমিতাভ বচ্চনের কাছেও গিয়েছিলেন ফিন্যান্সের জন্য। চিত্রনাট্য পড়ে শুনিয়েছিলেন বিগ বিকে। কিন্তু এত কিছুর পরেও তার স্বপ্ন থেকে গিয়েছে অধরা। পরিচালক নয় বরং নায়ক হিসেবে খ্যাতি লাভ করেছেন চিরঞ্জিত চক্রবর্তী।

চিরঞ্জিত

আক্ষেপের সুর নিয়ে চিরঞ্জিত জানিয়েছেন, এখানেই থেকে গিয়েছেন। হিরো হয়েছেন। এমনকি তিনি দূরদর্শনে খবর করতেন সে কোথাও জানিয়েছেন। অভিনেতা ভেবেছিলেন হিরো হয়ে গেলে অনেক পরিচিতি বৃদ্ধি পাবে। তেমনটা হয়েওছে। কিন্তু পরিচালক হওয়ার স্বপ্ন থেকে গিয়েছে সুপ্তভাবেই।

এক সাক্ষাৎকারে চিরঞ্জিত চক্রবর্তী জানিয়েছেন, “সত্যজিৎ রায়ের সঙ্গে কাজ করেছি, ভাল কাজ করার ইচ্ছে ছিল, ভাল ছবি তৈরি করার ইচ্ছে ছিল। তখন আমি খুব ছোট, লিখেছিলাম চিত্রনাট্য। সকলের দরজায় দরজায় গিয়ে কথা বলার চেষ্টা করেছি। কেউ টাকা দেয়নি। কেউ ফিন্যান্স করেনি”।

চিরঞ্জিত

অভিনেতা আরও বলেন, “আমি অমিতাভ বচ্চনের বাড়ি গিয়েছি, একটি স্ক্রিপ্ট পড়ে শুনিয়েছি। তখন আমার বয়স ২২ বছর। খুব তাড়াতাড়ি শুরু করতে চেয়েছিলাম হয়তো। কিন্তু অমিতাভ বচ্চন রাজিও হয়েছিলেন। অথাৎ যিনি প্রযোজক, তিনি কোনওভাবে আমার পাশ থেকে সরে গিয়েছিলেন। ছবিটা করতে পাড়িনি আমি। যদি হিন্দিতে এই কাজটা করে ফেলতাম, তবে আমার জীবনের গল্পটাই হয়তো পাল্টে যেত। আমি পরিচালক হতাম। আমার জীবনের গল্পটাই অন্য রকমের হতো। হয়তো আমি আন্তর্জাতিক স্তরে এখন কাজ করতাম”।

Back to top button