সিনেমা

নয়া অবতারে শ্রাবন্তী! দেবী চৌধুরানী নিয়ে বড় ঘোষণা প্রযোজনা সংস্থার

অনেক দিন আগেই প্রকাশ্যে এসেছিল দেবী চৌধুরানীর ফার্স্ট লুক। শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের মোট তিনটি লুক এবং অর্জুন চক্রবর্তী, সব্যসাচী চক্রবর্তী, বিবৃতি চ্যাটার্জী, দর্শনা বণিক, কিঞ্জল নন্দর লুকও প্রকাশ্যে আনা হয়েছে। আর এই ফাস্ট লুক দেখে প্রশংসার বন্যা বয়ে গিয়েছিলো। এবার শুরু হল শুটিং। শনিবার থেকে শুরু হল দেবী চৌধুরাণীর শুটিং। এমনটাই জানানো হয়েছে প্রযোজনা সংস্থার তরফে।

অ্যাডিটেড মোশন পিকচার্স একটি ছবি পোস্ট করে সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখেন, এক অসাধারণ গল্পের দ্বার খুলে গেল। আজ থেকে শুরু হচ্ছে দেবী চৌধুরানী ছবির শুটিং। ড্রামা, প্যাশন এবং চিরকালের একটি দুর্দান্ত গল্প অপেক্ষা করে আছে। সেখানেই শুটিং শুরুর কথা জানানো হয়েছে।

শুভ্রজিৎ মিত্রর পরিচালনায় হতে চলেছে দেবী চৌধুরানী।মূলত বীরভূম, ঝাড়খণ্ড, পুরুলিয়া, বিহার ও কলকাতার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে হবে শ্যুটিং।

পরিচালক জানিয়েছিলেন দু মাসের মধ্যে শুটিং সম্পন্ন হবে। যদিও এক বছর আগে থেকে প্রোডাকশনের কাজ চলছিল। অনেকে লার্জ ক্যানভাসে এই ছবি শুট করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

প্রথমেই দেখানো হয়েছে বিয়ের পর শ্বশুর বাড়ি ছেড়ে আসা প্রফুল্লকে। সেখানে ছাপা শাড়ি গলায় কালো কার দেখা গিয়েছে তাকে। একেবারেই গ্রাম্য ছাপোষা লুক দেওয়া হয়েছে। এর পরের ছবিটা দেখা যাচ্ছে সদ্য বিবাহিতা প্রফুল্লকে। সেখানে লাল বেনারসি গা ভর্তি গয়নায় অনবদ্য লাগছে শ্রাবন্তীকে।

তবে আসল চমক রয়েছে তার দেবী চৌধুরানী হয়ে ওঠার পরের সাজে। এই সাজে একেবারেই অনবদ্য লাগছে শ্রাবন্তীকে। কপালে তিলক, হাত তীর-ধনুক-তরোয়াল। গলায় রুদ্রাক্ষের মালা। পাট আর গাছের বাকল দিয়ে চটি পরানো হয়েছে। গায়ে জড়ানো রয়েছে পাটের বর্ম।

অন্যদিকে এই ছবিতে অর্জুন চক্রবর্তীকে দেখা যাবে রঙ্গরাজের ভূমিকায়। তাঁর মাথায় জটা, মুখে লম্বা দাড়ি। খাটো করে পরানো হয়েছে ধুতি। গলায় দেওয়া রুদ্রাক্ষের মালা। গায়ে মাখানো হয়েছে ভষ্ম। কাঁধে ধনুক। দু হাতে রয়েছে দুটি খোলা তরোয়াল। প্রফুল্লর শ্বশুর হরবল্লভ রায়ের চরিত্রে অভিনয় করবেন সব্যসাচী চক্রবর্তী।

সাগরের চরিত্রে রয়েছেন দর্শনা। যিনি সেজেছেন হাতে বোনা বালুচরীতে। সঙ্গে সাবেকি সোনার গয়না। ছবিতে যোদ্ধাবেশে দেখা যাবে বিবৃতি চট্টোপাধ্যায়কেও। তাঁর চরিত্রের নাম নিশি। পরে আছেন সুতির শাড়ির উপর পাটের বর্ম।

সব থেকে বড় চমক রয়েছে ভবানী পাঠকের চরিত্রে। এই চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে। তবে তার লুক এখনো প্রকাশ্যে আনা হয়নি। অন্যদিকে, প্রফুল্লর স্বামীর অর্থাৎ ব্রজেশ্বরে চরিত্রে দেখা যাবে কিঞ্জল নন্দকে।

Back to top button