গসিপ

কেউ বোঝেনি, বোঝার চেষ্টা করেনি! এত বছর পর কীসের আক্ষেপ ড্রিম গার্লের গলায়?

ধর্মেন্দ্র সঙ্গে হেমা মালিনীর সম্পর্ক নিয়ে জল ঘোলা হয়েছে বিস্তর। প্রথম পক্ষের বউ প্রকাশ কৌরের সঙ্গে দাম্পত্য চলাকালীনই হেমা মালিনীকে বিয়ে করেন ধর্মেন্দ্র। হেমা মালিনীও চাননি কখনোই ধর্মেন্দ্র তার আগের পক্ষে স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ করুক। কিন্তু এখনও দোষ আসে ড্রিমগার্লের বিরুদ্ধে। অভিযোগ ওঠে তাঁর জন্যই নাকি সংসার ভেঙেছে ধর্মেন্দ্রর।

   

হেমা মালিনীকে কখনওই মেনে নিতে পারেননি সানি দেওল। কিন্তু হেমা মালিনীও কখনও এই নিয়ে মুখ খুলতে দ্বিধা বোধ করেননি। তিনি স্পষ্টই জানান, কারণ সংসার ভাঙার ইচ্ছে কোনদিনই ছিল না তার। তবে কেউ সে কথা বোঝেনি বোঝার চেষ্টাও করেনি।

হেমা মালিনী সবসময়ই জানিয়েছিলেন, ধর্মেন্দ্র পরিবারের সকলের সঙ্গেই সম্পর্ক রাখতে পারেন। এই নিয়ে কোনও আপত্তি নেই তাঁর। তিনি সবটা জেনেই এ বিয়ে করেছেন। তবে ধর্মেন্দ্রর পরিবার বা প্রথম পক্ষের স্ত্রী তা মেনে নিতে পারেননি। ধর্মেন্দ্রর অনেক অনুরোধ সত্ত্বেও সম্পর্ক মসৃণ করতে নারাজ ছিল আগের পক্ষে স্ত্রী ও সন্তানেরা।

এদিকে জানা যায় প্রেমের সম্পর্কে থাকাকালীন সময়েই অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন হেমা মালিনী। গর্ভে তখন এষা দেওল। এই অবস্থায় হেমা মালিনীকে বিয়ে করেন ধর্মেন্দ্র। কিন্তু প্রথম পক্ষের বউ প্রকাশ কৌরকে তখনও তিনি ডিভোর্স দেননি। এর মধ্যেই এই খবর জানতে পেরেছিলেন ধর্মেন্দ্রর মা সতবন্ত কৌর।

Back to top button