ভাইরাল

গান-অভিনয়ের শখ-সাধ আগেই পূরণ হয়েছে, এবার কবিতা পাঠ করে শোনাবেন হিরো আলম

বাংলাদেশের কৌতুকাভিনেতা হিরো আলম’কে বলতে গেলে ওপার এবং এপার বাংলার বহু মানুষ‌ই চেনেন! কিছুদিন আগে নিজের গানের ঠেলায় নিজেই বিপদে পড়ে অবশেষে ক্ষমা চান বাংলাদেশের জনপ্রিয় ইউটিউবার হিরো আলম! রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গানকে বিকৃত করে দেশবাসী রোষানলে পড়ে ছিলেন হিরো আলম! বিতর্ক এতটাই বাড়তে থাকে যে তাঁকে গ্রেফতারের দাবি পর্যন্ত তোলা হয়। আর অবশেষে সেই বিতর্ককে বন্ধ করতে ক্ষমা চান হিরো আলম!

চলতি বছরের ১৪ই জুন ঢাকার প্রেস ক্লাবে একটি মানববন্ধনের আয়োজন করে বাংলাদেশ অপসংস্কৃতি প্রতিরোধ সংস্থার সদস্যরা। আর আলমের বিরুদ্ধে মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি, প্রযোজক, পরিচালক বিপ্লব শরিফ। আলমের বিরুদ্ধে উক্ত সংগঠনের তরফে বলা হয় , হিরো আলমের মতো মানুষ এইদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে। এই দেশের একাংশের মানুষ হিরো আলমকে অন্যায়ভাবে প্রশয় দিয়ে চলেছেন। অন্য গান ছাড়াও রবীন্দ্রসঙ্গীতের মতো গানকে বিকৃত করার অভিযোগে অবিলম্বে হিরো আলমকে গ্রেফতারের দাবি জানানো হয়।

আসলে সোশ্যাল মিডিয়ায় হিরো আলমের গিটার হাতে ‘আমার পরাণ যাহা চায়’ গান ভাইরাল হয়। কিন্তু সেই গানে সুর বা লিরিক্স কোনটাই মেলে না! অত্যন্ত বিশ্রী শুনতে লাগছিল সেই গান! আর যা শুনে রীতিমতো খেপে উঠেছিল নেটিজেনরা। যে কোনও গান’কে বিকৃত করে তার পিন্ডি চটকে দেন তিনি। আর তার বিরুদ্ধে গর্জে ওঠে খোদ বাংলাদেশের একাংশ। তাঁদের কথায়, বাংলাদেশের সংস্কৃতিকে নষ্ট করে দিয়েছেন হিরো আলম। অবিলম্বে তাঁর এই ধরনের গান বাজনা বন্ধ করা উচিত। এরপর হিরো আলম একটি ভিডিও বার্তায় বলেন, ‘আমি চাই না এই বিষয়টা নিয়ে কাদা ছোড়াছুড়ি হোক। আমি ভুল স্বীকার করছি, আমার ওই ভাবে গান গাওয়াটা ঠিক হয়নি। ভবিষ্যতেও আমি আর কখনও রবীন্দ্রনাথ, নজরুলের গান গাইব না। সবাই আমায় ক্ষমা করে দেবেন’।

রবীন্দ্র সঙ্গীত ও নজরুলগীতি’কে বিকৃত করার অভিযোগে বাংলাদেশের এই আলোচিত ইউটিউবারকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ! আশরাফুল আলম সঈদ ওরফে হিরো আলম ওইদিন মুচলেখা দিয়ে জানান তিনি আর কখনও বিকৃত করে রবীন্দ্রসঙ্গীত ও নজরুলগীতি গাইবেন না। সে তাঁর গান-অভিনয় নিয়ে যত‌ই বিতর্ক হোক না কেন তিনি কিন্তু মানুষকে বিনোদন দেওয়া বন্ধ করবেন না! আর তাই এবার  সম্পূর্ণ এক নতুন রূপে চমক দিতে আসছেন ওপার বাংলার এই সুপারস্টার। গান-অভিনয়ের শখ তাঁর আগেই পূরণ হয়েছে এবার কবিতা পাঠ করতে চলেছেন তিনি! জানা গেছে, শীঘ্রই আসতে চলেছে হিরো আলমের নতুন ছবি ‘হাসিওয়ালা’। এটি  ৮ মিনিটের একটি ‘পোয়েট্রিকাল ফিল্ম’। আর এই ছবিতেই দর্শকদের বড় চমক দিতে চলেছেন তিনি! ‘হাসিওয়ালা’তে কবিতা পাঠ করে শোনাবেন হিরো আলম। জানা গেছে তাঁর নিজের জীবনের ওপর লেখা একটি কবিতাই এবার দর্শক ও ভক্তকূল’কে পাঠ করে শোনাবেন তিনি।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে হাসিওয়ালার পোস্টার! যেখানে হিরো আলমের কাব্যিক রূপ ধরা পড়েছে! পোস্টারে দেখা যাচ্ছে, তাঁর পরনে রয়েছে ধুতি পাঞ্জাবি, গলায় একটি চাদর, মাথার চুল উসকো খুসকো আর চোখে মোটা ফ্রেমের একটি চশমা। ভাবুক চোখে আনমনা তিনি! উল্লেখ্য, এই বিষয়ে সংবাদমাধ্যমকে হিরো আলম জানিয়েছেন, বিগত দু’মাস ধরে তিনি আবৃত্তির চর্চা করেছেন। নিজের উচ্চারণকে স্পষ্ট করার চেষ্টা করেছেন। তবে এত চেষ্টা’র পর‌ও যদি তাঁর পাঠ করা আবৃত্তি  দর্শকদের ভালো না লাগে তাহলে আর কোন‌ওদিন তিনি কবিতা পাঠ করবেন না বলেও জানিয়েছেন।



Back to top button