বিনোদন

প্রেম ভেঙেছে মানে জীবনটাই শেষ নয়! কীভাবে তারকা থেকে সুপারস্টার হয়ে উঠলেন? গল্প শোনালেন মিঠুন

নিজের দক্ষতায় ফুটপাথ থেকে আজ রাজপ্রাসাদে উঠে এসেছেন গৌরাঙ্গ চক্রবর্ত্তী ওরফে মিঠুন চক্রবর্তী। তাঁর অভিনয় নিয়ে কেউ কোনও দিন প্রশ্ন তুলতে পারেনি। এই রকম একজন উচ্চ মানের অভিনেতা প্রেমে ব্যর্থ হয়েই সাধারণ মানুষ থেকে সুপারস্টার হয়ে উঠেছেন? হ্যাঁ এমনটাই মত খোদ মিঠুন চক্রবর্তীর।

সম্প্রতি হিন্দি জি টিভির সারেগামাপাতে বিশেষ অতিথি হিসেবে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল মিঠুন চক্রবর্তীকে। সেখানে গিয়েই নিজের ব্যক্তিগত জীবন, প্রেম, ভালোবাসা, বিচ্ছেদ নিয়ে মুখ খুলেছেন তিনি। যা শুনে অবাক হয়ে গিয়েছেন সেখানের উপস্থিত সকলে।

মিঠুন চক্রবর্তী জানান, তাঁর জীবনে একবার নয় একাধিক বার প্রেম এসেছিল। কিন্তু কোনোটিই স্থায়ী হয়নি। সব কেটে গিয়েছে। তিনি বলেন, “সকলেই কঠিন পরিস্থিতি দিয়ে যায় কিন্তু আমি আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি ভালোবাসা এবং উত্তরে ভালোবাসা না পাওয়া কিন্তু দারুণ একটা বিষয়। আমিও এমন একটা পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে গিয়েছিল। ভীষণ ভালবাসতাম, কিন্তু সে আমায় ছেড়ে চলে যায়। ওই সময়টাই আমায় সাহায্য করে ঘুরে দাঁড়াতে। আমি একজন সাধারণ অভিনেতা থেকে সুপারস্টার হয়ে উঠলাম। আজকাল লোকজন আমায় লিভিং লেজেন্ড বলে।”

ডিস্কো ডান্সারের কথায়, “এক আধবার প্রেম ভেঙেছে মানে গোটা জীবনটাই শেষ হয়ে গেল এমনটা নয়। ওর সেই সিদ্ধান্তের জন্যই আমি আজ আমি হয়ে উঠতে পেরেছি। ওর জন্যই আমার জেদ চেপে গিয়েছিল”।

প্রসঙ্গত, ১৯৭৬ সালে মৃণাল সেনের পরিচালনায় মৃগয়া ছবিতে প্রথম অভিনয় করেন তিনি। জিতে নেন সেরা অভিনেতা হিসেবে জাতীয় পুরস্কার। এরপর মুখ্য চরিত্রে অভিনয়ের সুযোগ না পেয়ে কার্যত হারিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। এরপরে, তাঁকে খ্যাতির আলোয় নিয়ে এল ‘ডিস্কো ডান্সার’ ছবিটি। শুধু অভিনয় নয়, মিঠুন পরিচিত হলেন এক দুর্দান্ত নৃত্যশিল্পী হিসেবেও।

Back to top button