বিনোদন

প্রথম সিনেমাতেই খোলামেলা পোশাকে মুনমুন! তুমুল শোরগোল অভিনেত্রীর ছবি দেখে

আশির দশকে যখন সাবেকি পোশাকের রমরমা বাংলা সিনেমায় ঠিক তখনই একের পর এক সাহসী পোশাক পড়ে বিতর্কের ঝড় তুলেছিলেন মুনমুন সেন। তাই সাহসী দৃশ্যে অভিনয় কিংবা বোল্ড লুক সবই হয়ে দাঁড়িয়েছিল বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দু।

   

টলিউড বলিউড দুইয়েই দাপটের সঙ্গে রাজত্ব করেছেন তিনি।রাতারাতি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। দর্শকদের মনেও স্থায়ী জায়গা অর্জন করে নিয়েছেন। সুচিত্রা সেনের মেয়ে হওয়ায় তুলনার মুখেও তাঁকে কম পড়তে হয়নি। যদিও এই বিষয়গুলিতে পাত্তা দেননি কোনও দিনই।

‘অন্দর বাহার’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে ক্যারিয়ার শুরু করেন মুনমুন সেন। আর মুনমুন তাঁর প্রথম ছবিতেই এমন পোশাক পরেছিলেন, যা সে সময়ের তুলনায় ছিল যথেষ্ট সাহসী৷ছবিতে একটি দৃশ্যে বিকিনি পরেছিলেন মুনমুন। যার জেরে সর্বত্র হৈচৈ পড়ে যায় সে সময়। অনেকেই বলতে শুরু করেন, রাজ পরিবারের বধূ হয়ে এ কী পোশাক পরেছেন তিনি।

এক সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন, সুচিত্রা সেন তাঁকে সাঁতারে ভর্তি করিয়ে দিয়েছিলেন। তাই সুইমিং স্যুট তার কাছে কোনদিনই অস্বস্তিকর পোশাক ছিল না। তার মাও কোনও দিনও এইসব নিয়ে আপত্তি করেননি।তবে তাঁর বোল্ড দৃশ্য বারবার সেই সময় খবরের শিরোনামে উঠে এসেছিল।

অভিনেত্রী আরও বলেন, “মা কোনওদিন সেভাবে পোশাক নিয়ে আমায় কিছু বলেননি, আমি সাঁতার শেখাতাম, তাই একটা শর্ট, একটা খোলামেলা পোশাককে আমার সাহসী বলে মনে হয়নি। যে যাই বলুক, সরাসরি আমায় এসে কেউ কিছু বলতেন না”।

Back to top button