বিনোদন

শোয়ের মাঝেই তীব্র প্রতিবাদ, মেজাজ হারালেন নচিকেতা! হঠাৎ কী হল গায়কের?

পায়ে পায়ে কেটে গেছে ৩০টা বছর। আর এখনো সেই আগের মতই তাঁর গান শুনে জ্বলে ওঠে নব প্রজন্ম। নচিকেতার প্রতিটা জীবনমুখী গান আজও উদ্দীপনা যোগায় তার শ্রোতাদের। যে সমস্ত বুদ্ধিজীবীরা বলেছিলেন নচিকেতা মাত্র এক দেড় বছর টিকবে তাদের ভুল প্রমাণ করে এখনও উড়ছে তার আগুন পাখি। এবার এক মঞ্চে অনুষ্ঠান করতে এসে হঠাৎ মেজাজ হারালেন গায়ক। গানের মাঝেই তীব্র প্রতিবাদ করে বসলেন। হঠাৎ কী হল তাঁর?

গুজব রটেছে নচিকেতার ক্যান্সার হয়েছে। দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন অনুরাগীরা। কিন্তু এই খবর সম্পূর্ন ভুয়ো বলে জানান গায়ক। মূলত এই গুজবেই দারুন ক্ষিপ্ত তিনি। তীব্র ভাষায় প্রতিবাদ করলেন তাঁকে নিয়ে রটে যাওয়া মিথ্যে রটনার বিরুদ্ধে।

অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে গায়ক বলেন, “আমার লড়াইটা ৪০ বছরের। অনেকেই অনেক বার বলেছেন যে এই বুঝি নচিকেতার নৌকো ডুবে গেল, নচিকেতার ক্যানসার হয়ে গেল। অনেকেই ভাবেন আমি বুঝি আর শো করতে পারব না। কারা এসব বলে? কারাই বা এসব রটায়? যেখানেই যাই সেখানেই সবাই জিজ্ঞেস করে কী শরীর ভালো তো? গ্রিনরুমে বসে সেখানে এসেও লোকজন এক কথা জিজ্ঞেস করে। যেন নতুন কিছুই জানার নেই তাঁদের”।

তিনি এই প্রসঙ্গে বলেন, “দাপিয়ে শো করে বেড়াচ্ছি, তার মধ্যেই কারা বলে বেড়াচ্ছে আমার নাকি ক্যানসার হয়েছে। কিছু হয়নি আমার, বলে বলে অসুস্থ করে দেবেন না”।

ক্ষোভ প্রকাশ করে নচিকেতা চক্রবর্তী আরও বলেন, “কোথায় জিজ্ঞেস করবে জিডিপি রেট কী হবে, আগামী সরকার নিয়ে কথা বলবে তা নয় এক কথা সবসময়। এবার আমায় যদি কেউ জিজ্ঞেস করে শরীর ভালো কিনা আমি পাল্টা বলব শরীর ভালো তো তোর”?

নচিকেতা চক্রবর্তী বাঙালির আবেগ। ২৫০-র বেশি গান বেঁধেছেন ‘নগরবাউল’ নচিকেতা। তবুও মাটিতে পা রেখে চলাতেই বিশ্বাসী তিনি। নচিকেতার প্রথম অ্যালবাম ‘এই বেশ ভাল আছি’ মুক্তি পায় ১৯৯৩ সালের ১৪ই অগস্ট। মাত্র দেড় মাসেই ১ লক্ষ ২৫ হাজার কপি। আর মোট ৫লাখ কপি বিক্রি হয়েছিল সব মিলিয়ে।

Back to top button