বিনোদন

কষ্টের কথা শুনেই মস্করা করেছে সবাই! ভিডিও প্রকাশ করে আক্ষেপের কথা জানালেন ‘স্মার্ট দিদি’ নন্দিনী

ডালহৌসি চত্বরে কয়লা ঘাটের কাছে একটি পাইস হোটেল। বাবা মা মেয়ে মিলে চালায় সেই হোটেল। আর এতেই রাতারাতি সেলিব্রেটি বনে গিয়েছেন নন্দিনী। তিনি এখন স্মার্ট দিদি। তার গল্প লোকের মুখে মুখে ফেরে। রান্না থেকে খাবার পরিবেশন বলতে গেলে সব টাই করেন একা হাতে। এমনকি এখন মাচা শো-ও করেন চুটিয়ে। এবার এই নন্দিনী খুলেছেন রেস্তোরাঁ। তবে এর পাশাপশি নিজের মনের এক কষ্টের কথা জানালেন তিনি।

   

জনপ্রিয় হওয়ার দরুন রোজই নানান ফোন আসে তাঁর কাছে। কখনও শোয়ের অফার দিয়ে কখনও আবার ব্লগাররাও ফোন করেন তাঁদের কনটেন্টের জন্য। কিন্তু এর মধ্যেই বেশ কিছু ফোন আসে যেগুলো ভীষণই অস্বস্তিকর। জীবনে অনেক কষ্ট করেছেন তিনি। কিন্তু সেই কষ্টের কথা যেই শুনেছে সেই মস্করা করছে বলে জানান তিনি।

একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন নন্দিনী। সেখানে বলছেন তিনি, “আমি কষ্টকে হাসিমুখে সহ্য করতে শিখে নিয়েছি বলে এমন নয় আমাকে তা আঘাত করে না। খুব কষ্ট হয। তবে যাকে যাকে এর আগে নিজের কষ্টের কথা জানিয়েছি, তারা সকলেই আমাকে নিয়ে মস্করা করেছে”।

প্রসঙ্গত, বর্তমানে তাঁর পাইস হোটেলের রোজ দুপুরে ভিড় থাকে চোখে পড়ার মতো। তিনি এতটাই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন যে দিদি নাম্বার ওয়ানের মঞ্চেও ডাক পড়েছিল তার। রান্না-বান্না থেকে ক্রেতাদের খাবার পরিবেশন সবটাই নিজে হাতে সুন্দর করে সামাল দেন তিনি।

একটি সিনেমায় মুখ্য চরিত্রে দেখা যাবে নন্দিনীকে। সিনেমাটির নাম তিন সত্যি। সেখানে আরও রয়েছেন বর্ষীয়ান অভিনেত্রী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়। এছাড়াও নিজের একটি ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে তাঁর। সেই চ্যানেলের নাম রেখেছেন ‘নন্দিনীদি অফিসিয়াল’। সেখানে ট্রাভেল থেকে ফুড ভ্লগ, আসে নানা ধরনের ভিডিয়ো।

Back to top button