বিনোদন

স্থিতিশীল পরমপত্নী! অপারেশন শেষে বাড়ি ফিরছেন পিয়া

কোনও রকমে বিয়ে সেরেই হাসপাতালে যাওয়ার তোড়জোড় শুরু করতে হয়েছিল পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ও তাঁর নববিবাহিতা স্ত্রী পিয়া চক্রবর্তীকে। মঙ্গলবারই হয়েছে অপারেশন। সব কিছুই মিটেছে ভালোয় ভালোয়। এবার আজ ছুটি পেয়ে বাড়ি যাচ্ছেন তিনি।

সোমবার রাতেই ঢাকুরিয়ার এক বেসরকারি হাসপাতালে মধ্যরাতেই ভর্তি করা হয় পরমব্রতর নব বিবাহিতা স্ত্রী পিয়াকে। জানা যায়, কিডনিতে পাথর হয়েছিল তাঁর। আর এইদিন সন্ধ্যাতেই হল অস্ত্রোপচার। ঘণ্টাখানেক ধরে অস্ত্রোপচার চলে। রাত সাড়ে ৮টা নাগাদ অস্ত্রোপচার শেষ হয়। চিকিৎসক জানিয়েছিলেন স্থিতিশীল রয়েছেন তিনি।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ল্যাপ্রোস্কোপিক পদ্ধতিতে সার্জারি হয়েছে পিয়ার। একদম ছোট গর্ত করে অপারেশন করা হয় সেক্ষেত্রে। স্থিতিশীল রয়েছেন তিনি। আজই ছাড়া পাচ্ছেন তিনি। ছুটি পেয়েই পরমব্রতর যোধপুর পার্কের বাড়ি ফিরছেন পিয়া। তবে আপাতত তাঁকে কয়েকদিন সম্পূর্ন বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসক।

কাছের মানুষদের নিয়েই সোমবার রাতে হয়েছে বিয়ের অনুষ্ঠান। জানা গিয়েছে, বেশ কিছুদিন আগেই কিডনিতে পাথর ধরা পড়েছিল পিয়ার। যন্ত্রণা হয়ে উঠেছিল অসহনীয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেই সে কথা জানিয়েছিলেন তিনি। এরপর ব্যথা খানিকটা প্রশমিত হয়েছিল। কিন্তু জানা গেল এবার অস্ত্রপচার করতেই হবে। সেই কারণেই সোমবার রাতেই তড়িঘড়ি তাকে ঢাকুরিয়ার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

প্রসঙ্গত, অনুপম রায়ের প্রাক্তন স্ত্রীর সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধেছেন পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়। সোমবারই চার হাত এক হয়েছে। এই বিয়ের খবরে কার্যত তোলপাড় শুরু হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চা হচ্ছে নানান মহলে।

সোমবার দুপুরে পরিবারের উপস্থিতিতে রেজিস্ট্রি ম্যারেজ সারলেন পরম-পিয়া। অভিনেতার যোধপুর পার্কের বাড়িতেই কাছের লোকদের নিয়ে হয় এই অনুষ্ঠান। ২৭ নভেম্বর সপ্তাহের একদম শুরুতেই আইনি ভাবে চার হাত এক হল তাঁদের।

২০২১ সালেই বিচ্ছেদের পথে হেঁটেছিলেন অনুপম-পিয়া। এদিকে পরমের বিদেশিনী প্রেমিকা ইকার সঙ্গেও তৈরি হয়েছিল তাঁর দূরত্ব। তার সেই দূরত্বের ঘাতে মলম লাগাতে কাছাকাছি এসেছিলেন পিয়া-পরম। সেই থেকে শুরু। আজ সেই সম্পর্কের শুভ পরিণতি। শোনা গিয়েছিল পিয়াকে নাকি গোপনে বিয়ে করেছেন পরমব্রত। তবে সেই বিষয়টি তখন জল্পনার স্তরে থাকলেও এবার তা সত্যি হল।

Back to top button