বিনোদন

আমি কি পাশের বাড়ির বউকে চুমু খাবো? প্রেম জাহির করতে গিয়ে হঠাৎ কেন মেজাজ হারালেন রাজ?

সরস্বতী পুজো ও প্রেম দিবস পড়েছিল এবার একই দিনে। আর সবার মত ভালোবাসায় মেতে উঠেছিল তারকারাও। নিজের ভালোবাসার মানুষকে প্রকাশ্যে চুমু খেতে কোনও রাখঢাক করতে নেই। এমনটাই মত রাজ চক্রবর্তী ও শুভশ্রী গাঙ্গুলীর। চুমু ভালোবাসার প্রকাশ বলেই মনে করেন এই দম্পতি।

   

প্রকাশ্যে চুমু খাওয়ার প্রসঙ্গে রাজ বলেন, “আমার একমাত্র বউকে আমি চুমু খাবো না? আমি কি পাশের বাড়ির খোকনদার বউকে গিয়ে চুমু খাবো? আমি আমার বউকে চুমু খাবো এতে সমস্যা কোথায়? সরস্বতী পুজোর দিন আজকে, ভ্যালেন্টাইনস ডে আমার মনে হয় সবাই যাকে ভালোবাসো তাকে চুমু খেও। গালে হোক, কপালে হোক, হাতে হোক, যেখানে হোক খেও।”

এদিকে এই একই মত পরিচালকের স্ত্রীরও। তিনি বলেন, “চুমু অত্যন্ত বেসিক একটা ইমোশন। একটু আগেই রাস্তা দিয়ে দেখছিলাম, এক বাবা তাঁর মেয়েকে কোলে নিয়ে হেঁটে হেঁটে যাচ্ছে, আর যতক্ষণ হাঁটছে ক্রমাগত চুমু খেয়ে যাচ্ছে। বেসিক এক্সপ্রেশন অফ লাভ”।

সদ্য দ্বিতীয় সন্তানের মা হয়েছেন শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। এর মধ্যেই খুব শীঘ্রই কাজে ফিরলেন তিনি। এবার তারই আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেল। একরত্তি মেয়েকে বাড়িতে রেখেই ছুটলেন কাজে। স্বামীর ব্যানারেই কাজে ফিরলেন তিনি।

পরিচালক স্বামী রাজ চক্রবর্তীর ওয়েব সিরিজেই আবার দেখা মিলতে চলেছে অভিনেত্রীর। বুদ্ধদেব গুহের প্রেমের গল্প, ‘বাবলি’- নিয়ে হচ্ছে ছবির প্রেক্ষাপট। কথা ছিল সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে জানুয়ারির শেষ থেকে ফেব্রুয়ারির শুরুর মধ্যে শুটিং শুরু হবে। সেই মতোই এই ছবির শুটিং শুরু হয়েছে। ইন্দ্রদীপ দাস গুপ্ত এই প্রজেক্টের সঙ্গীত পরিচালনা করছেন। অভিনেত্রীর বিপরীতে দেখা যাবে আবীর চট্টোপাধ্যায়কে। সিরিজটি মুক্তি পাবে জি ফাইভে।

শুভশ্রীর প্রথম সিরিজ, ‘ইন্দুবালা ভাতের হোটেল’ যা ২০২৩ সালেই মুক্তি পায়,দর্শক এবং সমালোচক মহলে প্রশংসিতও হয়। তাঁর অভিনয় মন জয় করেছিল দর্শকদের। এদিকে রাজ চক্রবর্তীর প্রথম ওয়েব সিরিজ আবার প্রলয়ও দারুন প্রশংসিত হয়েছে। এবার ওয়েব সিরিজে দুজনের যুগলবন্দী দর্শকদের কতটা মনে ধরে সেটাই এখন দেখার।

Back to top button