গসিপ

ভাবমূর্তির কথা বলছেন, কেউ ভেতরটা দেখে না! হঠাৎ অভিমানের সুর কেন রেখার গলায়?

জয়া-অমিতাভ-রেখা এই ত্রিকোণ প্রেম কাহিনী আজও বলিউডের চর্চার অন্যতম জনপ্রিয় টপিক। এই ত্রিকোণ প্রেমের সম্পর্ক সব সময়ই শিরোনামে। জানা যায় জয়া ভাদুড়ির সঙ্গে বিয়ের পরেও রেখার সঙ্গে সম্পর্ক টিকিয়ে রেখেছিলেন অমিতাভ বচ্চন। আর এই নিয়ে তাদের সংসারে অশান্তিও হয়েছিল। কিন্তু রেখাকে নিয়ে সর্ব সমক্ষে জয়া কখনও কিছু না বললেও রেখা একবার মুখ খুলেছিলেন এই নিয়ে।

   

যখন রেখা আর অমিতাভের সম্পর্ক নিয়ে সরগরম বিটাউন ময়দানে নামেন জয়া ভাদুরি। শক্ত হাতে নিজের সংসারের হাল ধরেন। ভাঙনের মুখ থেকে ফিরিয়ে আনেন সংসারকে। আর এক প্রকার এই কথা স্বীকার করে নিয়েছেন রেখাও।

এক সাক্ষাৎকারে রেখাকে বলতে শোনা যায়, “কেউ গুরুত্ব দেন না, আমি কী চাই। আমিও তো একটা মেয়ে তাই না? পরিবারের সকলেও অসম্মানিত, কার অভিভাবক অসম্মানিত হবে না বলুন তো, যদি জানতে পারেন, তাঁদের সন্তানের একটি সম্পর্ক আছে শুনলে? আর ভাবমূর্তির কথা বলছেন, কেউ ভেতরটা দেখে না। অপরজন নিজের বেচারি ভাবমূর্তি কী সুন্দর ধরে রেখে চলেছেন। এই প্রভাবটা খুব ভাল তাই না? আমি মুক্ত। উল্টোদিকের মানুষটা সেটা পারেন না, ফেলে চলে যেতে পারেন না”।

এদিকে কখনোই প্রকাশ্যে অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে রেখাকে কথা বলতে দেখা যায়নি। এমনকি দূরত্ব বজায় রাখতেন জয়া বচ্চনের সঙ্গেও। বলিউডে গুঞ্জন ছড়িয়েছিল রেখা ও অমিতাভের মধ্যে রয়েছে মাখোমাখো প্রেম। আর সেই সম্পর্ক খুব স্বাভাবিকভাবেই পীড়া দিয়েছিল অমিতাভ বচ্চনের স্ত্রী অভিনেত্রী জয়া বচ্চনকেও। আর এই তিন অভিনেতা-অভিনেত্রীর অভিনীত সিলসিলা দেখলে কিন্তু খানিকটা সেই বাস্তবের কথাই মনে হয়। সেই সিনেমায় বাস্তব আর গল্প যেন মিলেমিশে গিয়েছিল।

Back to top button