বিনোদন

জাঁকজমক নয়, ছিমছাম ভাবেই সাজতে চান সন্দীপ্তা! বিয়ের আগে সুপ্ত ইচ্ছা নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী

হাতে মাত্র আর এক সপ্তাহ। তারপরেই চার হাত এক হবে। বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী সন্দীপ্তা সেন। তাঁর আগে বিয়ের তোড়জোড় কেমন, কেমন ভাবেই বা সাজতে চান তিনি সেই সব কিছু নিয়ে মুখ খুললেন।

ছোট পর্দা থেকে সিনেমা, ওটিটি, সব ক্ষেত্রেই তাঁর অবাধ বিচরণ। অভিনেত্রী সন্দীপ্তা সেন। ২০০৭ সালের দুর্গা ধারাবাহিক দিয়ে যাত্রা শুরু করেছিলেন অভিনেত্রী। এরপর নিজের অভিনয় দক্ষতার গুনে দর্শকদের মন জয় করেছেন। এবার বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন তিনি। তার আগে জমিয়ে আইবুড়ো ভাত খাওয়ার পালা চলছে তাঁর।

এই কটা দিন কঠোর ডায়েটকে দূরে রেখে ভুরিভোজে মজেছেন তিনি। একেবারে কবজি ডুবিয়ে রাজকীয় পদের স্বাদ নিচ্ছেন। পোলাও, খাসির মাংস, ফিশ ফ্রাই, শেষ পাতে নানান রকম মিষ্টি সব কিছুই রয়েছে মেনুতে। নিজের আত্মীয় স্বজনদের কাছেই এখন তাঁর এই আইবুড়ো ভাত খাওয়ার পালা চলছে।

এক প্রথম সারির সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, বিয়েতে একটু ছিমছাম ভাবে সাজতে চান তিনি। গোলাপি রঙের বেনারসি পরবেন সন্দীপ্তা। তবে জাঁকজমক নয়, পুরনো দিনের স্টাইলের বেনারসি পরার ইচ্ছে রয়েছে তাঁর। প্যাস্টেল শেডের পোশাকে সাজবেন সৌম্য। আংটিবদলের দিন এখনও পর্যন্ত সন্দীপ্তা ভেবেছেন লেহঙ্গা পরবেন। সৌম্য পরবেন তার সঙ্গে মানানসই ইন্দো-ওয়ের্স্টান পোশাক।

অভিনেত্রী নিজেই জানান, “আগামী ২ ডিসেম্বর আংটি বদল হবে। তারপর ৭ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিক বিয়ে। কেনাকাটা এখনও সেভাবে কিছুই করে ওঠা হয়নি। বন্ধুরা সবাই বলছে যে এক বছর ধরে সবাই বিয়ের শপিং করে। তবে আংটি বদলের দিন লেহেঙ্গা পরার ইচ্ছে রয়েছে। আর বিয়েতে অবশ্যই বেনারসী পরব।”

বিয়ের মেনুও খানিকটা ঠিক হয়ে গেছে বলেই জানিয়েছেন তিনি। বলেন, “মেনু এখনও পর্যন্ত পুরোপুরি ঠিক হয়নি। তবে যেহেতু শীতকালে বিয়ে তাই কয়েকটা জিনিস থাকবেই। যেমন, কড়াইশুটির কচুরি, ছোলার ডাল, আলুর দম। চিংড়ির মালাইকারী, পোলাও, মটন। বাকি আরও কিছু যোগ হবে”।

সন্দীপ্তা-সৌম্য দুজনেই ঘুরতে ভীষণ ভালোবাসেন। তাই ঘুরতে যাওয়ার প্ল্যানও সেরে ফেলেছেন তাঁরা। সন্দীপ্তা বলেন, “হ্যাঁ, আমরা ঘুরতে খুব ভালোবাসি। তবে এখনই ঘুরতে যাব না। কারন কাজ থেকে পরপর এত ছুটি পাওয়া যাবে না। তাই দু-তিন মাস পর আমরা কোথাও একটা ঘুরতে যাব। সেটা এখনও ঠিক করিনি”।

Back to top button