সিনেমা

ইচ্ছে পূরণ ভক্তদের! ৮ বছরে কতটা গভীর হল বিক্রম-শোলাঙ্কির সম্পর্ক?

ইচ্ছে পূরণ হচ্ছে অনুরাগীদের। আবারও পর্দায় ফিরছে অনুরাগ-মেঘলা জুটি। তবে এবার বড় পর্দায়। ভক্তদের অপেক্ষার প্রহর গোনার পালা এবার শেষ। শীঘ্রই মুক্তি পাচ্ছে অরিত্র সেনের ‘শহরের উষ্ণতম দিনে’। তারই প্রচারে এখন ব্যস্ত তাঁরা। তবে এই আট বছরে কতটা গভীর হল এই জুটির সম্পর্ক? মুখ খুলেছেন নিজেরাই।

সম্প্রতি নতুন ছবি ‘শহরের উষ্ণতম’ দিনের পোস্টার শেয়ার করেন শোলাঙ্কি। তার কমেন্টবক্সে ভালবাসার ইমোজি দিয়ে লেখা হয়, “অনুরাগ-মেঘলা মোমেন্ট”। ইচ্ছে নদী ধারাবাহিকের এই মিষ্টি জুটিকে যে দর্শক আবার একসঙ্গে দেখতে চাইছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

অরিত্র সেনের এই ছবিতে বিক্রম পেশায় একজন ফটোগ্রাফার। চরিত্রের নাম ঋতবান। অপর দিকে শোলাঙ্কি রেডিও জকি। ওর চরিত্রের নাম অনিন্দিতা। বিদেশে যাওয়ার ইচ্ছে থাকলেও যেতে পারেনি অনিন্দিতা। এই শহরের প্রেমে পড়ে গিয়েছে। কীভাবে হবে এই দু’জনের প্রেম? তা জানতে গেলে দেখতে হবে সিনেমা। ৩০ জুন মুক্তি পাবে এই সিনেমা।

নিজেদের বন্ধুত্ব নিয়ে শোলাঙ্কি জানিয়েছিলেন, এই ছবির গল্প শুনেই কাজ করতে রাজি হয়েছিলেন। তবে মনে মনে চেয়েছিলেন বিপরীতে এমন একজন অভিনেতা থাকুক যার প্রতি ভালোলাগাটাও থাকবে। এরপর বিক্রমের নাম শুনে এই কাজের প্রতি ভাললাগাটা আরও বেড়ে গিয়েছিল। অন্যদিকে বিক্রম জানান, প্রথম থেকেই বোঝা গিয়েছিল এই বন্ধুত্ব দৃঢ় হবে এ বন্ধুত্ব আজীবন থেকে যাবে।

২০১৫ সালে শুরু হয়েছিল ইচ্ছেনদী ধারাবাহিক। চলেছিল টানা ২বছর। সেই সময় প্রথম জুটি বাঁধেন বিক্রম শোলাঙ্কি। তাঁদের জুটি দারুন পছন্দ করেন দর্শকরা। তাই ফের একবার এই জুটিকে বড় পর্দায় দেখার জন্য উদগ্রীব ভক্তরাও।

Back to top button