গসিপবিনোদন

তাড়াতাড়ি দেখা করো, এক হাজার কথা জমে আছে! বাবার কাছে চোখের জলে আবদার স্বস্তিকার

বয়স ৪০ পেরলেও এখনো ভক্তদের সেনসেশন তিনি। তার স্টাইল,পোশাক, মেকআপ, ব্যক্তিত্ব সবকিছুই একেবারে ব্যতিক্রমী সব সময়। স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় শুধুমাত্র অভিনয় দক্ষতার জন্য নয় বরং নিজের স্পষ্টবাদী স্বভাবের জন্যও একই রকম ভাবে জনপ্রিয়। কোন কিছুই রাগ ঢাক না রেখে একেবারে মনের কথা অপপটে বলে ফেলেন তিনি। এবার নিজের বাবাকে নিয়ে আবেগপূর্ন পোস্ট করলেন অভিনেত্রী।

প্রয়াত অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়ের জন্মদিন ছিল শনিবার। এই বিশেষ দিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় বাবাকে খোলা চিঠি লিখলেন অভিনেত্রী। উজাড় করে দিলেন সব আবেগ। যাবতীয় লুকিয়ে থাকা মনের কথা ব্যক্ত করলেন নিজের লেখায়। আবদার করে বসলেন বাবার কাছে।

ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি দিয়েছেন তিনি। সেখানে দেখা যাচ্ছে, বাবার কোলে লাল রঙের ফ্রক পড়ে বসে আছেন ছোট্ট স্বস্তিকা। ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, “যেখানেই থাকো পরের জন্মে আমার বাবা হয়েই এসো কিন্তু। তোমার কথা রোজ মনে পড়ে, অবশ্য পড়ার কিছু নেই তুমি আমার মনেই থাকো সর্বক্ষণ। তোমার ফেলে যাওয়া আসবাবপত্র, তোমার চশমা, বইপত্র, জামাকাপড় সব যেমন ছিল তেমনই আছে। গুছিয়ে রেখেছি। খালি মনে হয় কখনও যদি ফিরে আসো আর কিছু খুঁজে না পাও, যদি ভাবো তোমায় ভুলে গিয়েছি, তোমার কোনও চিহ্ন নেই আর, ওই ভয়ে সব যত্ন করে আগলে রাখি।”

অভিনেত্রীর সংযোজন, “আগে মরে যাওয়ার কথা ভাবলে ভয় হত, এখন আর হয় না, ভাবি মরে গেলে আবার তোমাকে আর মাকে দেখতে পাব। আগে তুমি প্রায়শই স্বপ্নে আসতে, অনেক কাল আর আসো না। একদিন এসো বাবা, তোমায় অনেকদিন দেখিনি। তোমার পরা জামাগুলো থেকে ঘামের গন্ধটা মুছে গেছে, তাই তোমার প্রিয় পারফিউমগুলো মাঝেমাঝে মাখি, মনে হয় এই বুঝি তুমি বাড়ি ফিরলে, এই বুঝি আমাকে ডাকবে। তোমার মতো করে কেউ আমাকে ডাকে না।’ পোস্টের শেষ বেলায় বাবার কাছে মেয়ের আবদার, ‘কত ঘ্যানঘ্যান জমে আছে, তাড়াতাড়ি দেখা করো। তোমার গায়ে পড়ে থাকব, অনেক গল্প করব। এক হাজার কথা জমে আছে”।

Back to top button