বিনোদন

কথা বন্ধ সৌরভ-সানার! হঠাৎ কী নিয়ে ঝগড়া হল বাবা-মেয়ের? যা জানালেন মহারাজ…

বাবার মত বিদেশের মাটিতে গিয়ে দেশের নাম উজ্জ্বল করল মেয়েও। আর মেয়ে সানা গাঙ্গুলীর সাফল্যে গর্বিত তাঁর বাব সৌরভ গাঙ্গুলিও। লন্ডনে গ্লোবাল ইউনিভার্সিটি থেকে দারুন রেজাল্ট নিয়ে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেছে সানা। এবার সেখানে নতুন কাজেও যোগ দিয়েছে সে। কিন্তু এখন নাকি বাবার সঙ্গে বেজায় ঝগড়া চলছে তাঁর। দুজনের মধ্যে কথা বলাই বন্ধ। মেয়েকে নিয়ে এমনটাই জানালেন সৌরভ গাঙ্গুলি।

উচ্চশিক্ষার জন্য লন্ডনের গ্লোবাল ইউনিভার্সিটিতে অর্থনীতি নিয়ে ভর্তি হয়েছিল সানা গাঙ্গুলি। মেয়েকে দুর দেশে রেখে এসে মন খারাপ ছিল মহারাজের। তাই সময় পেলেই মেয়ের সঙ্গে দেখা করতে সেখানে উড়ে যেতেন তিনি। মেয়ের সাফল্যে মা-বাবা হিসাবে সেখানে উপস্থিত ছিলেন সৌরভ-ডোনা।

সম্প্রতি দাদাগিরির মঞ্চে এসেছিল ফুলকি’ পরিবারের সদস্যরা। ফুলকির সতীন-কাঁটা শালিনী ওরফে শার্লির সঙ্গে আড্ডার ফাঁকেই উঠে এল সানা প্রসঙ্গ। । সেখানেই তিনি সৌরভকে বলেন, “বাবার আমার ভীষণ ক্লোজ, কিছু কিছু বিষয়ে আমি তোমার সঙ্গে আমার বাবার খুব মিল পাই”।

এরপরেই সৌরভ জানান, “এখন ঝগড়া চলছে… সানা খুব একটা কথাবার্তা শোনে না। সব বিষয়ে খুব একটা মতামত রয়েছে। মতামত নিয়ে বাবার সঙ্গে ঝগড়াঝাটি হয়, তবে হ্যাঁ, সানাই সবচেয়ে প্রিয়”।

এদিকে জীবনের প্রথম বেতন পেয়েই বাবাকে উপহার দিতে উদ্যোগী হয়েছিল সানা। এই প্রসঙ্গে সৌরভ বলেছিলেন, “আসলে এই মাসেই প্রথম মাইনে পেয়েছে ও। আসলে দূরে থাকে তো। আমাকে ফোন করে বলল, তোমায় এই গিফটটা দেব। আমি জিজ্ঞেস করলাম দাম কত? এমন দাম শোনাল, আমি বললাম আমার লাগবে না। তোমার প্রথম রোজগার তুমি জমাও। আসলে ছেট মানুষ তো ভেবেছে বোধহয় বাবাকে উপহার দতে গেলে অনেক দামী কিছু দিতে হয়। নাহলে বাবা খুশি হয় না। আমি বললাম আমাকে সামান্য কিছু দিও, তাতেই আমি খুশি”।

Back to top button