বিনোদন

এভারগ্রীন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়! ৫০ পেরিয়েও কীভাবে নিজের সৌন্দর্য ধরে রেখেছেন অভিনেত্রী? ফাঁস করলেন নিজেই

বয়স প্রায় ৫০ এর কোঠায়। কিন্তু ত্বকের উজ্জ্বল্য যেন কোনও ভাবেই কমেনি। বরং ধীরে ধীরে বাড়ছে গ্ল্যামার। চলচ্চিত্র জগতের বিখ্যাত অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জীকে দেখলে মনে হবে এমনটাই। কিন্তু তার এই রূপের রহস্য কি জানেন?

এখনো নিজের ফিগারকে যেমন ধরে রেখেছেন লাস্যময়ী রচনা। ঠিক তেমনি এই বয়সেও ঘুম উড়িয়ে দিতে পারেন যে কোনও যুবকের। আজও সেই তরুণীই রয়ে গিয়েছেন তিনি। তার রূপের মাধুর্য হুঁশ ওড়াতে পারে যে কোন যুবকের। এই পঞ্চাশের কোঠায় এসেও তার ফিগার থেকে শুধুমাত্র ঝড়ে পড়ে লাস্য। সকলেই উঠবে থাকেন তার এই বিউটি সিক্রেট জানার জন্য।

রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় কঠোর নিয়ম মেনে চলেন। জানা গিয়েছে, রচনা সারাদিনে প্রচুর জল খান। সময়ে সময়ে জল খাওয়ার জন্য টাইমার দিয়ে রেখেছেন তিনি। তার মতে দিনে অন্ততপক্ষে ২ লিটার জল সবার খাওয়া উচিত। আর এর ফলে ত্বকে যেমন জেল্লা আসবে, তেমনই শরীরও ভালো থাকবে।অভিনেত্রীর মতে ডায়েট অত্যন্ত জরুরি। জাঙ্ক ফুড বাদ দিতে হবে তালিকা থেকে। খাওয়া দাওয়া নিয়ে ভীষণ কঠোর তিনি। শাক সবজি এবং সিজনাল ফল তার তালিকায় অত্যাবশ্যক। এই দুই ছাড়া তার একদমই চলেনা।

জানা গিয়েছে, ঘুম থেকে উঠে ৩ থেকে ৪ গ্লাস গরম জল পান করেন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপর সিদ্ধ ডিম ও ফল দিয়ে জলখাবার খান রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি ওটসও খান খনও কখনও। দুপুরে গ্রিন স্যালাড, সিদ্ধ সব্জি থাকে তাঁর মেনুতে।

এভারগ্রীন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়! ৫০ পেরিয়েও কীভাবে নিজের সৌন্দর্য ধরে রেখেছেন অভিনেত্রী? ফাঁস করলেন নিজেই
এভারগ্রীন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়! ৫০ পেরিয়েও কীভাবে নিজের সৌন্দর্য ধরে রেখেছেন অভিনেত্রী? ফাঁস করলেন নিজেই

নিজেকে সুন্দর রাখার জন্য রচনার পরামর্শ চিন্তামুক্ত রাখার। চিন্তামুক্ত থাকলে রূপের জেল্লা আরো বেড়ে যায়। তাই সর্বদাই চিন্তামুক্ত থাকতে এবং সাথে ওয়ার্কআউট তার জন্য মাস্ট। এছাড়াও বাইরে বেরোলে সর্বদাই সানস্ক্রিন ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছেন অভিনেত্রী।

Back to top button